রিয়ালকে না বলা কঠিন: সুয়ারেজ

স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ উরুগুয়াইন স্ট্রাইকার লুইস সুয়ারেজকে সান্তিয়াগো বানাব্যুতে নিয়ে যাবার চিন্তা ভাবনা করছে। লিভারপুলের ‘ব্যাড বয়’ সুয়ারেজ জানান, “রিয়াল থেকে অদৌ যদি কোন প্রস্তাব আসে তবে সেটাকে প্রত্যাখান করা কঠিন হবে।”

এবারের মৌসুমে বড় ধরনের কোন শিরোপা না জেতায় কোচ হোসে মরিনহোর উপর রিয়াল দলীয় ব্যবস্থাপনা কমিটি বেশ হতাশ। তাই আগামী মৌসুমকে সামনে রেখে দলকে ঢেলে সাজানোর পরিকল্পনা নিয়েছেন রিয়াল এর সভাপতি ফ্লোরেনতিনো পেরেজ। সেই জন্য সম্প্রতি গুজব উঠেছে লস বস্ন্যাঙ্কোস সভাপতি নিজেই সুয়ারেজকে দলে ভিড়ানোর লক্ষ্য স্থির করেছেন। বুধবার রেডিও স্টেশন রেডিও স্পোর্টস ৮৯০ তে সুয়ারেজ বলেন, “লিভারপুল এর সাথে আমার চুক্তি এখনও বহাল আসে। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদকে না বলাটা আমার জন্য খুব কঠিন হবে।”

suarez

“রিয়াল মাদ্রিদকে না বলাটা আমার জন্য খুব কঠিন হবে”

২০১১ সালে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের রক্ষনভাগের খেলোয়াড় প্যাট্রিক ইভরাকে বর্ণবৈষ্যমূলক কথা বলার জন্য তাকে বহিস্কার করা হয়। এই মৌসুমে চেলসির রক্ষনভাগের খেলোয়াড় ইভানোভিচকে কামড় দিয়ে নতুন বিতর্ক সৃষ্টি করেন, এর ফলে সুয়ারেজকে ১০ খেলায় বহিস্কার করা হয়। লিভারপুলের এই আক্রমন ভাগের খেলোয়াড় অন্যান্য বহু কারনে সমালোচিত হয়েছেন তবে একইসাথে তার কিছু অসাধারণ খেলোয়াড়ি দক্ষতার জন্য তার দুর্নামগুলোও চাপা পড়ে।

ইংলিশ গনমাধ্যমের সমালোচনায় বিরক্ত সুয়ারেজ। তিনি বলেন, “লিভারপুলে থেকে আমি খুব খুশি, এজন্য সামর্থ্যকদের ধন্যবাদ। আমি ভুল শিকার করেছি, আমিও মানুষ। কিন্তু গনমাধ্যম, তারা আমাকে যেভাবে উপস্থাপন করেছে সেটা মোটেও শোভনীয় নয়। এতে আমার পরিবার এর সম্মানহানি হয়েছে। পুরো বিষয়টি সীমা অতিক্রম করেছে। আমি সত্যিকার অর্থে বিষয়টি নিয়ে ক্লান্ত। এতে আমার স্ত্রী এবং মেয়ে বিরক্ত। একজন খেলোয়াড় হিসাবে তারা কখনই প্রশংসা করে নাই, আমার আচরন নিয়েই বেশি ব্যস্ত ছিল। এই ধরণের পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে আমি প্রস্তুত নই।”